আজঃ বৃহস্পতিবার ২৮ অক্টোবর ২০২১

আমাকে নিয়ে কেন এভাবে গেম হচ্ছে, মিলার ক্ষোভ

সাবেক স্বামী পারভেজ সানজারির দায়ের করা মামলায় স্থায়ী জামিন পেয়েছেন সংগীতশিল্পী মিলা। জামিন পেয়েই প্রথম আলোর সঙ্গে আলাপে হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেছেন মিলা। তিনি বলেছেন, অনেক ধরনের হুমকি–ধামকি এরই মধ্যে পেলেও সাবেক স্বামীর বিরুদ্ধে দায়ের করা নির্যাতন ও যৌতুকের মামলা তিনি কোনো অবস্থায় প্রত্যাহার করবেন না। আইনিভাবে শেষ পর্যন্ত লড়ে যাবেন তিনি। মিলার দাবি, ‘আমি আমার অবস্থানে অনড় আছি। কারণ, মামলায় আমি সত্যটাই তুলে ধরে মামলা করেছি।’

সাবেক স্বামী পারভেজ সানজারির দায়ের করা অ্যাসিড হামলার অভিযোগ থেকে স্থায়ী জামিন পান সংগীতশিল্পী মিলা। বুধবার ঢাকার অ্যাসিড অপরাধ দমন ট্রাইব্যুনালের ভারপ্রাপ্ত বিচারক দিলারা আলো চন্দনা এ আদেশ দেন।

সংগীতশিল্পী মিলা
সংগীতশিল্পী মিলা

প্রথম আলোকে এ তথ্য নিশ্চিত করেন ওই আদালতের বেঞ্চ সহকারী আমিনুল ইসলাম। আদালত-সংশ্লিষ্ট সূত্র বলছে, আসামি গায়িকা মিলা আদালতে বুধবার আত্মসমর্পণ করে জামিনের আবেদন করেন। শুনানি নিয়ে আদালত ১০ হাজার টাকা মুচলেকায় তাঁর জামিন মঞ্জুর করেন।

জামিন পেয়েও খুশি হতে পারছেন না বলে জানালেন মিলা। তিনি বললেন, ‘আমার জামিন পাওয়াটা বড় কথা না। কারণ, আমাকে মিথ্যা মামলায় জড়ানো হয়েছে। এখন পর্যন্ত এই মিথ্যা মামলা নিয়ে আমাকে সবার কাছে জবাবদিহি করতে হচ্ছে। এর চেয়ে দুঃখজনক আর কোনো কিছু হতে পারে না। সবাই যেন আমার নামটা বেচে খাচ্ছে। প্রশ্নটা হচ্ছে, আপনাদের লাভ কি আমাকে এভাবে অসম্মান করে। আমার মতো একজন আর্টিস্টের জন্যও যদি সবার একটু দয়ামায়া থাকে, তাহলে প্লিজ আমাকে উদ্ধার করেন।’

মিলা
মিলা

মিলার দাবি, আদালতে বসা অবস্থায় তিনি তাঁর সাবেক স্বামী পারভেজ সানজারির কাছ থেকে হুমকি পেয়েছেন। কীভাবে জামিন পান, তা–ও দেখবেন তিনি। কিন্তু এতে তিনি মোটেও বিচলিত হননি। মিলা বললেন, ‘আমাকে ফাঁসানো হয়েছে। আমি যখনই ওঠে দাঁড়াতে চেয়েছি, তখনই মামলা হয়েছে। আমাকে নিয়ে এভাবে খেলার তো কোনো মানে নেই। আমাকে নিয়ে কেন এভাবে গেম হচ্ছে। এখন থেকে আমি আর কাউকে আমাকে নিয়ে খেলতে দেব না।’ আপনার বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা দেওয়ার মানে কী, এমন প্রশ্নে মিলার দাবি, ‘আমাদের বিয়েতে ধার্য হওয়া দেনমোহরের টাকা দেবে না বলে জানিয়েছে সানজারি। তার কর্মস্থলে যেন অ্যাপ্লিকেশন দিয়ে বলি, সানজারিকে চাকরিতে নেন।

তার বিরুদ্ধে করা সব মামলা তুলে নিতে হবে। আমি বারবার বলেছি, আমার মামলা সত্য, আমি এই মামলা তুলে নেব না। দরকার হয় আমি জেলে যাব, তারপরও নত হব না। মিথ্যা মামলা দিয়ে আমার ক্যারিয়ারের যে ক্ষতি করেছে, সে কারণেই সানজারির বিরুদ্ধে দায়ের করা মামলা আমি তুলে নেব না। কারণ, আমিই সত্য। আর এই সত্যের বিচার একদিন হবেই।’

আমাকে নিয়ে কেন এভাবে গেম হচ্ছে, মিলার ক্ষোভ

অ্যাসিড হামলার অভিযোগে সংগীতশিল্পী মিলার বিরুদ্ধে ২০১৯ সালের ৪ জুন মামলা করেন তাঁর সাবেক স্বামী এস এম পারভেজ সানজারির বাবা এস এম নাসির উদ্দিন। ওই মামলায় মিলার সহকারী পিটার কিমকেও আসামি করা হয়। মামলাটি তদন্ত করে গত বছরের ৩০ ডিসেম্বর গায়িকা মিলা ও পিটার কিমের বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগপত্র জমা দেয় পুলিশ।

মিলা
মিলা
ছবি: সংগৃহীত

মিলার সাবেক স্বামী পারভেজ সানজারি ২০১৯ সালের ২ জুন দুর্বৃত্তদের ছোড়া অ্যাসিডে দগ্ধ হয়ে ঢাকা মেডিকেলের বার্ন ইউনিটে ভর্তি হন। রাত আটটার দিকে উত্তরার ৩ নম্বর সেক্টরে পারভেজের গায়ে কে বা কারা অ্যাসিড ছুড়ে মারে। ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি বিভাগের আবাসিক চিকিৎসক তখন জানিয়েছিলেন, পারভেজ মোটরসাইকেল চালানোর সময় তাঁর গায়ে অ্যাসিড ছোড়া হয়।